Connect with us

আন্তর্জাতিক

“Bangladesh should not have got the Champions Trophy semi-final”,- Duckworth-Lewis method inventors

Published

on

Bangladesh Cricket was great for the year 2017. Their biggest achievement this year was playing the semifinal match at the tournament like ICC Champions Trophy.Tigers left the tournament from semifinal match. Bangladesh got off to the semifinals, defeating Australia by Duckworth-Lewis method.
Bangladesh were all out for 182 against Australia. Australia were 83 runs for 1 wicket in 16 overs before rain stopped play in reply. As a result, Bangladesh won the match by the Darkworth Lewis system.
The Duckworth-Lewis system inventor Frank Duckworth and Tony Lewis said that Some mistakes was found on The Duckworth-Lewis method.
In one column given to CricInfo, they said,”Australia should won in accordance with the estimates in Bangladesh vs Australia match. In that case, Bangladesh was not going to be in the semi-finals, Australia should be go to semi-final. It was wrong to go to the Bangladesh Semifinals in the tournament.”
They wrote,” However, ICC protocol for umpires in interrupted games appears to be inhibiting the application of the rule in this manner. It seems that the umpires first decide whether conditions are deemed fit to play, as they did for the 8.30pm planned restart in this case, and only then is the revised target assessed. This is what we call a static view of the protocol. We believe that a more dynamic view of the process would be fairer.
In other words, the revised target should be continuously under review as time is lost, which equates to about one lost over for every four minutes deducted. And so with about eight minutes left before the official cut-off time (which was declared as 9:59 pm that evening) the revised target of 79 for the loss of 28 overs would have been already achieved. But as rain was still falling, the umpires had decided that play could not resume and had no need, according to current protocols, to consult the table of possible targets. Since fewer than 20 overs had been bowled, there was no result and Australia were eliminated.”

Continue Reading
Advertisement
Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আন্তর্জাতিক

র‌্যাংকিংয়ে অবনতি বাংলাদেশের,শীর্ষে ফিরলেন ইংল্যান্ড!

Published

on

কিছুদিন আগে প্রকাশিত র‍্যাংকিংয়ে বাংলাদেশের অবস্থান ছিল ৭ নম্বরে। সেখানে তাদের রেটিং পয়েন্ট ছিল ৯২। কিন্তু নতুন হালনাগাদ করা র‍্যাংকিংয়ে বাংলাদেশের অবস্থান সাতে থাকলেও কমেছে রেটিং পয়েন্ট।

সর্বশেষ প্রকাশিত র‍্যাংকিংয়ের পর বাংলাদেশ একটি ম্যাচ খেলেছিল। সেই ম্যাচটি ছিল ভারতের বিপক্ষে। ২৮ রানে হেরেছিল এই ম্যাচে। এই হারে বিশ্বকাপ থেকেও বিদায় নিশ্চিত হয়ে গেছে টাইগারদের।

এবার সেই হেরে যাওয়া ম্যাচের কারণে বাংলাদেশের রেটিং পয়েন্ট কমে দাড়িয়েছে ৯১। এক রেটিং পয়েন্ট কমেছে টাইগারদের।

র‍্যাংকিংয়ে শীর্ষস্থান আবার দখল করেছে ইংল্যান্ড। এবার ফের ভারতকে টপকে শীর্ষে উঠে এসেছে ইংলিশরা।

ইংল্যান্ডের রেটিং পয়েন্ট এখন ১২৩। অন্যদিকে তালিকার দুই নম্বরে থাকা ভারতের রেটিং পয়েন্ট ১২২। ১১৩ পয়েন্ট নিয়ে তালিকার তিনে আছে অস্ট্রেলিয়া।

১১২ রেটিং পয়েন্ট নিয়ে চারে আছে নিউজিল্যান্ড। পাঁচে আছে দক্ষিণ আফ্রিকা। তাদের পয়েন্ট ১০৯।

বাংলাদেশের ঠিক উপরে আছে পাকিস্তান। তাদের রেটিং পয়েন্ট ৯৬। বাংলাদেশের রেটিং পয়েন্ট কমেছে ১। তাদের অবস্থান সাত হলেও পয়েন্ট কমে দাড়িয়েছে ৯১। ফলে পাকিস্তানের থেকে এখন ৫ রেটিং কম নিয়ে তালিকার ৭ নাম্বারে থাকতে হচ্ছে টাইগারদের।

এদিকে সাবেক দুই বিশ্বচ্যাম্পিয়ন শ্রীলঙ্কা ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ আছে তালিকার ৮ ও ৯ নম্বর স্থানে। শ্রীলঙ্কার পয়েন্ট ৭৯, ওয়েস্ট ইন্ডিজের পয়েন্ট ৭৬। ১০ নম্বরে থাকা আফগানদের পয়েন্ট ৬০।

Continue Reading

আন্তর্জাতিক

ফুটবলের রাজা ‘ব্রাজিল’ এখন ক্রিকেট বিশ্বকাপেও!

Published

on

বিশ্বকাপের মতো জমজমাট আসর চলবে আর সেখানে ব্রাজিল থাকবে না এটা কি কখনো হয়েছে? ফুটবল বিশ্বকাপে ব্রাজিল ছাড়া এ পর্যন্ত একটি আসরও শুরু করা সম্ভব হয়নি আজও। বাকি আছে ক্রিকেট বিশ্বকাপের আসর। গতকাল ক্রিকেটের বিশ্বযুদ্ধেও দেখা মিললো ফুটবলে রাজত্ব করা ব্রাজিলের। না তারা খেলেনি, মাঠে দর্শকের ভূমিকায় ছিলো। তাও আবার ব্রাজিলের পতাকাসহ।

ক্রিকেটটাও হয়তো সম্ভব হবে আর কয়েক বছর পর। কেননা তারা ইতিমধ্যে ক্রিকেট খেলা শুরু করে দিয়েছে এবং আইসিসি তাদের র‌্যাঙ্কিংয়ে ব্রাজিলসহ ফুটবল খেলুড়ে অনেক দেশকে তালিকাভুক্ত করেছে।

ক্রিকেটের জনপ্রিয় ওয়েবসাইট ইএসপিএন ক্রিকইনফো’র অফিসিয়াল টুইটার পেজে একটি ছবি পোস্ট করে এক লাইনে টুইট করেছে, ‘কবে আমরা ব্রাজিলকে ক্রিকেটের বিশ্বকাপে দেখবো?’

লন্ডনের লর্ডসে অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ডের ম্যাচ চলাকালীন মাঠের বাইরে এক নারী ভক্ত বিশ্বকাপের বিলবোর্ডের সামনে ব্রাজিলের পতাকা উঁচিয়ে ধরে ফটোসেশন করছিলো। সেটারই স্থিরচিত্র উঠে এসেছে ক্রিকইনফোর ক্যামেরায়। ফুটবল বিশ্বকাপের মতো ক্রিকেট বিশ্বকাপেও ব্রাজিলকে দেখতে মুখিয়ে আছে তারা।

Continue Reading

আন্তর্জাতিক

কেন নেই রিজার্ভ ডে,কারন জানালেন আইসিসি!

Published

on

বিশ্বকাপ এবং বৃষ্টি এবারের আসরে যেন একে অপরের নিত্য সঙ্গী। বিশ্বকাপের এবারের আসরে বৃষ্টির কারণেই পণ্ড হয়েছে তিনটি ম্যাচ। এই বৃষ্টি যেন রীতিমত কাল হয়ে দাঁড়িয়েছে। জেনে-শুনেও কেন রিজার্ভ ডে রাখল না সেটি নিয়ে আঙুল তুলেছেন অনেকেই। এবার সেটির ব্যাখ্যা দিয়েছেন আইসিসির প্রধান নির্বাহী ডেভিড রিচার্ডসন।

এবারের বিশ্বকাপে নতুন এক রেকর্ড গড়েছে… না সেটি কোন দল কিংবা ব্যক্তিগত নয়। বিশ্বকাপের ইতিহাসে এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ ম্যাচ বৃষ্টির কারণে বাতিল ঘোষণা করা হয়েছে। চার বছর পরপর অনুষ্ঠিত হওয়া এই টুর্নামেন্ট ক্রিকেট ভক্তরা অনেক আশা নিয়ে থাকলেও বৃষ্টি যেন রীতিমত বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে। বৃষ্টির কারণে গতকাল, বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কার মধ্যকার ম্যাচটিও বাতিল ঘোষণা করা হয়েছে।

ছবি: সংগৃহীত

এখন পর্যন্ত মোট তিনটি ম্যাচ বৃষ্টির কারণে বাতিল করা হয়েছে। আশঙ্কা করা হচ্ছে আরও বেশ কয়েকটি ম্যাচ বৃষ্টির কারণে পণ্ড হতে পারে। তাই তো আইসিসির সমলোচনায় মেতেছে ক্রিকেট ভক্তরা। বাংলাদেশ দলের হেড কোচ স্টিভ রোডস তো বলেই দিয়েছেন চাঁদে লোক পাঠাতে পারলে, বিশ্বকাপে কেন রিজার্ভ ডে রাখা যাবে না! অবশেষে এই বিষয়ে মুখ খুলেছে আইসিসি। সংস্থাটির প্রধান নির্বাহী রিচার্ডসন বলেন,

“প্রতিটি ম্যাচের জন্য রিজার্ভ ডে এর ব্যবস্থা করতে হলে টুর্নামেন্টের দৈর্ঘ্য অনেক বেড়ে যাবে। তখন পুরো টুর্নামেন্টটা সুষ্ঠুভাবে আয়োজন করা এক রকম অসম্ভব হয়ে দাঁড়াবে। পিচ প্রস্তুত করা, দলগুলোর যাত্রার সময়সূচি ও বিশ্রামের রুটিন, থাকার জায়গা, ভেন্যু ঠিক দিনে পাওয়া যাবে কি না, স্বেচ্ছাসেবক ও ম্যাচ অফিশিয়ালদের প্রাপ্যতা ও উপস্থিতি, সরাসরি সম্প্রচারে সমস্যা হবে কি না এসব কিছুর ওপর প্রভাব পড়বে তখন।”

তিনি আরও যোগ করেন,একটা ম্যাচ যখন আয়োজন হয়, তখন ১ হাজার ২০০ জনের মতো মানুষ সংশ্লিষ্ট থাকে। দেশের বিভিন্ন জায়গায় তাদের যাতায়াত করতে হয়। রিজার্ভ ডে তে ম্যাচ রাখা মানে আরও বেশি মানুষকে সম্পূর্ণ প্রক্রিয়ায় নিয়োজিত করা। তবে নকআউট পর্বে ম্যাচগুলোর জন্য রিজার্ভ ডে রয়েছে।”

তবে আর যাইহোক বৃষ্টির কারণে যে ক্রিকেট ভক্তরা বিরক্ত সেটি দেখাই যাচ্ছে। শ্রীলঙ্কা-পাকিস্তান ও বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কার ম্যাচটিতে তো টসও মাঠে গড়ায়নি। অন্যদিকে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও দক্ষিণ আফ্রিকার ম্যাচটি বেশ কিছুক্ষণের জন্য খেলা হলেও পরবর্তীতে বৃষ্টি না থামাতে পরিত্যক্ত ঘোষণা করা হয়।

Continue Reading
Coming Soon
Advertisement

Most Popular