Connect with us

ঘরোয়া লীগ

রুবেলের ব্রেইন টিউমার অপারেশনে যেভাবে সাহায্য করছে তামিম

Published

on

জাতীয় দলের সাবেক ক্রিকেটার মোশাররফ হোসেন রুবেল ব্রেন টিউমারে ভুগছেন। তাঁর অসুস্থতার খবর পেয়ে জাতীয় দলের ও জাতীয় দলের বাইরে থাকা প্রায় সব ক্রিকেটারই তাঁর দ্রুত সুস্থতা কামনা করেছেন।

সুদূর নিউজিল্যান্ড থেকে রুবেলকে সাহস যোগাতে ভুল করেননি দেশসেরা ওপেনার তামিম ইকবাল। সাথে রুবেলকে সব ধরণের সহযোগীতার আশ্বাসও দিয়েছেন। একথা রুবেল নিজেই স্বীকার করেছেন। সোমবার দেশের জনপ্রিয় ক্রিকেট বিষয়ক নিউজ পোর্টাল ক্রিকফ্রেঞ্জিকে এমনটাই বলেছেন।

সাক্ষাতকারে রুবেল বলেন ‘নিউজিল্যান্ড থেকে তামিম ভয়েস ম্যাসেজের সাথে বার্তা দিয়েছে। সে বলেছে চিন্তা না করতে। সিঙ্গাপুরে তাঁর অনেকেই পরিচিত আছে। সে আমাকে যেকোনো সাহায্যের জন্য বলতে বলেছে এবং এটা আমাকে মানসিক প্রশান্তি দিচ্ছে।’

ভিসা প্রক্রিয়া শেষ হলেই সিঙ্গাপুরে পথে রওনা হবেন রুবেল। টিউমারটি প্রাথমিক পর্যায়ে থাকায় কিছুটা আত্মবিশ্বাস যোগাচ্ছে রুবেলকে।তাই এর মাঝে আশার খবরও শুনালেন রুবেল

‘ভিসা হলেই চলে যাব। এটা প্রাথমিক পর্যায়ে আছে, এটি একটু আত্মবিশ্বাস জোগাচ্ছে। খবরটা শুনে পরিবারের সবাই ধাক্কা খেয়েছিল। এখন একটু সাহস পাচ্ছে।’

অনূর্ধ্ব-১৯

বাংলাদেশ অনুর্ধ্ব-১৯ ও এইচপি দলের নতুর কোচ ট্রেভর পেনি!

Published

on

বিসিবি হাই পারফর্মেন্স দলের জন্য নতুন ফিল্ডিং কোচ নিয়োগ দিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। স্বল্পমেয়াদে এইচপি ইউনিটের ফিল্ডিং কোচের দায়িত্ব পালন করবেন এই ইংলিশ ম্যান।

একই সাথে অনূর্ধ্ব-১৯ দলের ক্রিকেটারদের নিয়েও কাজ করবেন ট্রেভর পেনি। জুলাই মাসে ইংল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজ খেলবে অনূর্ধ্ব-১৯ দল। ত্রিদেশীয় সিরিজের আগে ক্ষুদে টাইগারদের নিয়ে বিশেষ ক্যাম্পের আয়োজন করেছে বিসিবি।

দীর্ঘদিন ইংলিশ কাউন্টিতে খেলা কোচ ট্রেভর পেনি গত বৃহস্পতিবার অনূর্ধ্ব-১৯ দলের বিশেষ ক্যাম্পে যোগ দিয়েছেন, কাজ করেছেন অনূর্ধ্ব-১৯ দলের ক্রিকেটারদের নিয়ে।

খেলোয়াড়ি জীবনে ওয়াকউইকশায়ার কাউন্টির দলের হয়ে খেলেছিলেন ট্রেভর পেনি। ১৯৮৬/৮৭ মৌসুমে ক্যারিয়ার প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটে অভিষেক হয় জিম্বাবুয়ের বংশোদ্ভূত ট্রেভর পেনির। ২০০৩ সালে এসে প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটকে বিদায় জানান।

দারুণ ফিল্ডিংয়ের জন্য কাউন্টি ক্রিকেটে নাম কুড়িয়েছিলেন তিনি। খেলোয়াড়ি জীবনের পাট চুকিয়ে ইংল্যান্ড জাতীয় দলের ফিল্ডিং কোচের দায়িত্ব নিয়েছিলেন তিনি। বিখ্যাত ২০০৫ অ্যাশেজে ইংল্যান্ডের কোচের দায়িত্ব ছিলেন ট্রেভর পেনি।

সফল অস্ট্রেলিয়ান কোচ টম মুডির সাথে কাজ করেছেন শ্রীলঙ্কা জাতীয় দলের কোচিং স্টাফ হিসেবে। ২০০৭ সালে মুডি দায়িত্ব ছাড়ার পর লঙ্কানদের প্রধান কোচের দায়িত্বও পালন করেছেন তিনি।

পশ্চিম অস্ট্রেলিয়া রাজ্য দলের সাথেও কাজ করেছেন তিনি। ভারতে কাজ করার অভিজ্ঞতাও আছে ট্রেভর পেনির। আইপিএল দল কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের দায়িত্ব পালন করেছেন এই কোচ।  

এমনকি গুন্জন শোনা যাচ্ছে যে ,বিশ্বকাপের পর ওয়ালশের চুক্তির মেয়াদ শেষ হলে তাকে নিয়োগ দেয়া হতে পারে জাতীয় দলে।

Continue Reading

দেশ

পাকিস্তানকে হারিয়ে সিরিজ জিতলো বাংলাদেশ!

Published

on

পাকিস্তান অনূর্ধ্ব-১৬ দলের বিপক্ষে ৩ দিনের দুই ম্যাচের সিরিজে ১-০ ব্যবধানে জয় পেয়েছে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৬ দল। খুলনায় দুই দলের মধ্যকার দ্বিতীয় ৩ দিনের ম্যাচটি ড্র হয়েছে। ফতুল্লায় প্রথম ম্যাচটিতে জয় পেয়েছিল বাংলাদেশ।ফলে এই ম্যাচটি ড্র হলেও পাকিস্তানের কাছ থেকে সিরিজ কেড়ে নিয়েছে বাংলাদেশের কিশোররা।

খুলনার শেখ আবু নাসের স্টেডিয়ামে দ্বিতীয় ৩ দিনের ম্যাচটি শুরু হয় গত সোমবার (৬ মে)। প্রথম ইনিংসে অধিনায়ক রিহাদের শতকে সবগুলো উইকেট হারিয়ে ২৯২ রান সংগ্রহ করে বাংলাদেশ। রিহাদ অপরাজিত থাকেন ১৩৬ রানে। রবিনের ব্যাট থেকে আসে ৫৩ রান।

পাকিস্তানের বোলার মুঘল ৩৮ রানের বিনিময়ে নেন ৪ উইকেট। ৫০ রানের বিনিময়ে ৩ উইকেট শিকার করেন আসফান্দ।

জবাবে পাকিস্তান প্রথম ইনিংসে ২১০ রানেই অলআউট হয়ে যায়। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৫৭ রান করেন উমর। মুঘলের ব্যাট থেকে আসে ২২ রান। বাংলাদেশের বোলার মুশফিক ২৮ রানের বিনিময়ে শিকার করেন ৩ উইকেট। রাব্বি ৩টি উইকেট নেন ৪২ রানের বিনিময়ে

২য় ইনিংসে ১৮৩ রান করে ইনিংস ঘোষণা করে বাংলাদেশ। এই ইনিংসে বাংলাদেশের পক্ষে সর্বোচ্চ ৮৭ রান করেন আইচ মোল্লা। সাকিবের ব্যাট থেকে আসে ৩২ রান।

দ্বিতীয় ইনিংসেও পাকিস্তানের সেরা বোলার ছিলেন মুঘল। শিকার করেন ২৯ রানের বিনিময়ে ৩ উইকেট। উমর নেন ৩৫ রানের বিনিময়ে ৩ উইকেট।

দ্বিতীয় ইনিংসে পাকিস্তানের ব্যাটসম্যানরা ১০৩ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে দিনশেষ হলে ম্যাচটি ড্র ঘোষণা করা হয়। এই ইনিংসে সফরকারীদের হয়ে সামীর ও ওয়াকাস করেন যথাক্রমে ৩৫ ও ২৮ রান। বাংলাদেশের রাব্বি শিকার করেন ২ উইকেট।

প্রথম ম্যাচটিতে জয় ও দ্বিতীয় ম্যাচটি ড্র করে ১-০ ব্যবধানে সিরিজ জিতে নেয় বাংলাদেশের কিশোররা।আগামী ১১ মে থেকে শুরু হবে দুই দলের তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:
বাংলাদেশ:
 (১ম ইনিংস) ২৯২/১০
রিহাদ ১৩৬*, রবিন ৫৩।
মুঘল ৪/৩৮, আসফান্দ ৩/৫০।
(২য় ইনিংস) ১৮৩/৮ (ডিক্লেয়ার)
মোল্লা ৮৭, সাকিব ৩২।
মুঘল ৩/২৯, উমর ৩/৩৪।

পাকিস্তান: (১ম ইনিংস) ২১০/১০
উমর ৫৭, মুঘল ২২।
মুশফিক ৩/২৮, রাব্বি ৩/৪২।
(২য় ইনিংস) ১০৩/২
সামীর ৩৫, ওয়াকাস ২৮।
রাব্বি ২/২৫।

ম্যান অব দ্যা ম্যাচঃ রিহাদ খান।

Continue Reading

দেশ

সাকিবের ব্যাটে পাকিস্তান অনুর্ধ্ব-১৬ দলকে হারাল বাংলাদেশ!

Published

on

প্রথম ইনিংসে পুড়েছিলেন মাত্র ৭ রানের জন্য ফিফটি মিসের যন্ত্রণায়। দ্বিতীয় ইনিংসে সেটি মেটালেন অসাধারণ এক ইনিংসে, যা ৫ উইকেটের সহজ জয় এনে দিয়েছে বাংলাদেশ অনুর্ধ্ব-১৬ দলকে।

ফতুল্লাহর খান সাহেব ওসমান আলি স্টেডিয়ামে পাকিস্তান অনুর্ধ্ব-১৬ দলের বিপক্ষে প্রথম তিনদিনের ম্যাচে ৫ উইকেটের জয় পেয়েছে বাংলাদেশ অনুর্ধ্ব-১৬ দল। দুই ইনিংসেই ব্যাট হাতে দারুণ ইনিংস খেলে জয়ের নায়ক ডানহাতি টপঅর্ডার ব্যাটসম্যান সাকিব শাহরিয়ার।

দ্বিতীয় দিন শেষেই মূলত ম্যাচ জয়ের সব কাজ সেরে রেখেছিল বাংলাদেশের যুবারা। আজ (বুধবার) শেষদিন স্রেফ আনুষ্ঠানিকতাটুকু সাড়েন দলের অধিনায়ক রিহাদ খান (৩৩ বলে ১৮) এবং সহ-অধিনায়ক মাহফুজুর রহমান রাব্বি (১০ বলে ১)।

এর আগে পাকিস্তানি যুবারা নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে ১১০ রানে অলআউট হলে বাংলাদেশের সামনে লক্ষ্য দাঁড়ায় ১২০ রানের। যার অর্ধেকের বেশিই আসে সাকিবের ব্যাট থেকে। ১১ চারের মারে ১০৪ বল খেলে ৬৫ রান করেন তিনি। এর আগে প্রথম ইনিংসেও খেলেছিলেন ৪৩ রানের ইনিংস।

এছাড়া সাজ্জাদ হোসেন মিরাজ ৫, মফিজুল ইসলাম রবিন, সোহাগ আলি ৪ এবং আইচ মোল্লা ১১ রান করে দলের জয়ে অবদান রাখেন। স্বাভাবিকভাবেই ম্যাচসেরার পুরষ্কার জিতেছেন সাকিব শাহরিয়ার।

বল হাতে দুই ইনিংসে বাংলাদেশের পক্ষে বাজিমাত করেছেন আশিকুর রহমান ও মাহফুজুর রহমান রাব্বি। দুজনই প্রথম ইনিংসে ২টি করে উইকেট নেয়ার পর দ্বিতীয় ইনিংসে নিয়েছেন সমান ৪টি করে উইকেট। এছাড়া প্রথম ইনিংসে মুশফিক হাসান শিকার করেছিলেন ৪টি উইকেট।

Continue Reading
Coming Soon
Advertisement

Most Popular